logo
For any kinds of physical problem contact with us or visit at our chamber.
+8801816566944
info@drsofiqul.com
70/B, East Panthpath, Dhaka
Instagram Feed
Site Statistics
Search

প্রোস্টেট ক্যান্সার ও হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা

প্রষ্টেট হচ্ছে প্রজনন ব্যবস্থায় উপস্থিত গ্রন্থি অঙ্গ যা সিমেন এর মত তরল উৎপন্ন করে এবং যা শুক্রাণুকে রক্ষা করে এবং পরিবহন করে। প্রষ্টেট মুত্রথনালীকে ঘিরে থাকে। মুত্রনালী কিডনী থেকে প্রস্রাব বহন করে নিয়ে আসে। প্রষ্টেট ক্যান্সার পুরুষদের মধ্যে অন্যতম একটি সাধারণ ক্যান্সার। প্রোস্টেট ক্যান্সার সময়ের সাথে ধীরে ধীরে অগ্রসর হয়, এজন্য এটি বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই শেষ স্টেজ এ গিয়ে ধরা পড়ে। তবে এটি শরীরের অন্যান্য অংশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে এবং আক্রমণাত্মক হতে পারে।

প্রষ্টেট ক্যান্সারের কারণঃ
প্রষ্টেট ক্যান্সারের সঠিক কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে প্রষ্টেটে ক্যান্সার কোষগুলি বৃদ্ধি করতে পারে এমন কারণগুলি হলোঃ
বয়সঃ প্রস্টে ক্যান্সার সাধারনত ৫০ বা তদুর্ধ বয়সী পুরুষদের মধ্যে হয়ে থাকে।
বংশগতঃ যদি কোন ব্যক্তির প্রষ্টেট ক্যান্সারের পারিবারিক ইতিহাস যেমন বাবা, মামা, চাচা ইত্যাদি থাকে, তাহলে তাদের প্রষ্টেট ক্যান্সারের সম্ভাবনা বেশী থাকে।
স্থুলত্বঃ স্থুল বা অতিরিক্ত মেদযুক্ত পুরুষদের প্রস্টেট ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বেশী থাকে।
যৌন সংক্রমণঃ বিভিন্ন ধরনের যৌনরোগ যেমন গণোরিয়া, সিফিলিস ইত্যাদি প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।
রাসায়নিক এক্সপোজারঃ ক্যাডমিয়ামের মত কার্সিনোজেনিক রাসায়নিকের সংস্পর্শে থাকা পুরুষদের মধ্যে প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি থাকে।

প্রস্টেট ক্যান্সারের লক্ষণঃ
প্রাথমিক স্টেজে প্রস্টেট ক্যান্সারের সাধারনত বিশেষ কোন লক্ষণ পরিলক্ষিত হয় না। তবে দীর্ঘসময় ধরে যদি নিম্নোক্ত লক্ষণগুলো দেখা দেয়, তবে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। যেমনঃ

১. ঘন ঘন মুত্রত্যাগ।
২. প্রস্রাবের সাথে রক্ত বা পুঁজ যাওয়া।
৩. বেদনাদায়ক বীর্জপাত।
৪. দিন দিন ওজন কমে যাওয়া।
৫. হাড়ের মধ্যে ব্যথা অনুভব হওয়া।
৬. তলপেটে ব্যথা।
৭. প্রস্রাব করার সময় কামড়ানো ব্যথা।
৮. পা বা শ্রোণী অঞ্চলে ফোলাভাব।

প্রস্টেট ক্যান্সারের প্রকারভেদঃ
অ্যাসিনার অ্যাডিনোকার্সিনোমাঃ অ্যাডিনোকার্সিনোমা ক্যান্সারগুলি প্রস্টেট গ্রন্থির অভ্যন্তরে উপস্থিত থাকে। প্রস্টেট এর এই ধরণের ক্যান্সার পুরুষদের মধ্যে বেশী হয়ে থাকে।
ডিউটাল অ্যাডিনোকার্সিনোমাঃ এই ধরণের প্রস্টেট ক্যান্সার প্রস্টেট এর আস্তরণ থেকে শুরু হয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।
ট্রানজিশনাল সেল (বা ইউরোথেলিয়াল) ক্যান্সারঃ এই ধরণের প্রস্টেট ক্যান্সার টিউবটির আস্তরণে শুরু হয়, যার মাধ্যমে মুত্র, মুত্রনালীর মাধ্যমে মুত্রাশয় এবং প্রস্টেট অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।
স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সারঃ স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সারগুলি প্রস্টেট এ থাকা সমতল কোষ থেকে উৎপন্ন হয়ে টিউমার গঠন করে এবং ক্যান্সার কোষে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হতে থাকে।
ক্ষুদ্র কোষ প্রস্টেট ক্যান্সারঃ নিউরোএন্ডোক্রাইন ক্যান্সারের জন্ম দেয়।

প্রস্টেট ক্যান্সারের হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসাঃ
প্রস্টেট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে হোমিওপ্যাথি একটি সর্বউৎকৃষ্ট চিকিৎসা ব্যবস্থা। ক্যান্সারের স্টেজ, রোগীর বয়স ও শারীরিক অবস্থা ও লক্ষণের উপর ভিত্তি করে Thuja Occidentalis, Conium Mac, Berberis Vulguris, Lycopodium, Phosphorus, Clemetis, Solidago, Terebinthina, Acid Phos, Equisetum Hypo, Acid Nit, Stromonium, Opium সহ আরো ৪৫ টির মতো মেডিসিন ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার সাফল্যের পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমানে অনেক রোগী হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার উপরে আস্থা রাখছেন। কোন ধরনের অপারেশন ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই হোমিওপ্যাথিতে প্রাথমিক পর্যায়ের রোগীরা পুরোপুরি আরোগ্য লাভ করে থাকে এবং এডভান্সড স্টেজের রোগীরা হায়াত থাকা পর্ন্ত ভালো থাকে।
———————————–
ডাঃ মোঃ শফিকুল আলম
বি এইচ এম এস (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), পি-এইচ-ডি (ভারত)
সাবেক অধ্যক্ষ,
সহযোগী অধ্যাপক- মেডিসিন বিভাগ
সরকারি হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মিরপুর-১৪, ঢাকা।
————–
চেম্বারের ঠিকানাঃ
আল সাবা হোমিও ফার্মেসী
৭০/বি, পূর্ব পান্থপথ, ঢাকা

সময়ঃ সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত,
৬ টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

সিরিয়ালের জন্যঃ 01816-566944, 01816-566943
যে কোন তথ্য ও পরামর্শের জন্যঃ 01712-796505, 01749-898929

Sorry, the comment form is closed at this time.